পাটকেলঘাটায় মায়ের খুনী টুম্পাকে খুঁজছে পুলিশ!
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮
কালিগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিভিন্ন মসজিদে দোয়া
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮

সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক চন্দন আটক

আওলাদ হুসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম চন্দনসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে- ১৪/০৯/২০১৮ তারিখ কলারোয়া থানাধীন গদখালী সাকিনস্থ কলারোয়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের দক্ষিনে সরকারী পাইলট হাইস্কুলের পশ্চিম পার্শ্বে পলাতক আসামী মনিরুজ্জামানের কোচিং সেন্টারে গোপনে মিলিত হয়ে বিস্ফোরকদ্রব্য সহ নাশকতা মুলক কার্যকলাপ পরিচালনার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করার সময় আসামী মোঃ মমতাজুল ইসলাম ওরফে চন্দন (৩৩), পিতা- মোঃ রবিউল ইসলাম স্থায়ী : গ্রাম- তুলসীডাংঙ্গা (পূর্ব), উপজেলা/থানা- কলারোয়া, গ্রেফতার করেন। এ বিষয়ে কলারোয়া থানার মামলা নং- ১৮, তারিখ ১৪/০৯/২০১৮ ইং, ধারা- ১৯০৮ সালের বিস্ফোরকদ্রব্য আইনের ৩/৬ তৎসহ ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩) রুজু হয় এবং আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে।

কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহম্মদ জানান- জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক বেশ কয়েকজন সঙ্গীকে নিয়ে নাশকতার পরিকল্পনাকালে তাকে আটক করা হয়। এ সময় তার এক সহযোগীও আটক হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা হয়েছে।

এদিকে, প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন- বৃহষ্পতিবার রাত ৯টার কিছু আগে কলারোয়া সরকারি জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুলের পাশ থেকে শুধুমাত্র চন্দনকে আটক করে মোটরসাইকালের মাঝখানে বসিয়ে থানায় নিয়ে যান এএসআই ইসহাক ও এএসআই হালিম। সেসময় ঢাকায় যাওয়ার লক্ষ্যে ঢাকাগামি পরিবহনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন ছাত্রদল নেতা চন্দন। সূত্র জানায়- অতিসম্প্রতি চন্দনের নামে একটি মামলার ওয়ারেন্ট ইস্যু হয়। সেই মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নিতে ঢাকায় যাচ্ছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম চন্দন কলারোয়া উপজেলা ছাত্রদলেরও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক এবং সাতক্ষীরা-১ আসনের সাবেক এমপি ও সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির সাবেক এমপি হাবিবুল ইসলাম হাবিবের ভাইপো।

সিটিনিউজ সেভেন ডটকম /এম.এস

Please follow and like us:
20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: