সার্ভার সমস্যায় এক ঘণ্টা বন্ধ ছিল ট্রেনের টিকিট বিক্রি
আগস্ট ১১, ২০১৮
দৈহিক শক্তি বাড়াতে যা খাবেন
আগস্ট ১১, ২০১৮

সাতক্ষীরায় কিশোরীর মৃত্যু শুনে ছেলেটি বলে ‘তাহলে আমিও গেলাম’

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: ভাইয়ের সঙ্গে অভিমান করে শিল্পী রানী সরকার (১২) নামে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মেয়েটির মৃত্যুর খবর পেয়ে কিশোর সুজয় মণ্ডল বলে, ‘তাহলে আমিও গেলাম’। এরপরই সেও একটি গাবগাছে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

শনিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের মহাদেবনগর গ্রাম থেকে ওই দুই কিশোর-কিশোরীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কেন তারা একই পথে গেল তা নিশ্চিত করা যায়নি। এ ঘটনায় সাতক্ষীরার দুটি দরিদ্র পরিবারে শোকের মাতম চলছে।

নিহত কিশোরী শিল্পী রানী সরকার (১২) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের মহাদেবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ও কিশোর সুজয় মণ্ডল (১৩) একই গ্রামের দিনমজুর গনেশ মণ্ডলের ছেলে। সে মোটরসাইকেল গ্যারেজের খুদে শ্রমিক ছিল। মহাদেবনগর গ্রামের একটি পুকুরের এপার ওপারে তাদের বাড়ি।

ঘোনা ইউপি সদস্য গনেশ সরকার জানান, সবজি বিক্রেতা বিষ্ণুপদ সরকারের এক ছেলে এক মেয়ে। ছেলে মিঠুন দশম শ্রেণির ছাত্র। শুক্রবার সন্ধ্যায় পড়ালেখা নিয়ে দুই ভাই বোনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এতেই অভিমান করে শিল্পী ঘরের আড়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

বাড়ির লোকজন তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিল্পীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। রাতেই তার মরদেহ নিয়ে আসা হয় বাড়িতে।

গ্রামে এ খবর জানাজানি হলে প্রতিবেশি কিশোর সুজয় মণ্ডল বাড়ির ধারে পুকুর ঘাটে বসে তার এক বন্ধুর কাছ থেকে মোবাইল ফোন নেয়। ফোন করে সে নিশ্চিত হয় শিল্পী মারা গেছে। তখন সে বলে ‘তাহলে আমিও গেলাম’। এরপর শিল্পীর বাড়িতে গিয়ে লাশ দেখে সেও পাশের একটি গাবগাছে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

রাতভর তার কোনো খোঁজ না পেয়ে শনিবার সকালে তাকে ঝুলতে দেখা যায় গাবগাছে বলে জানান ইউপি সদস্য।

ঘোনা ইউপির চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ফজলুর রহমান জানান, এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় পৃথক দুটি ইউডি মামলা হয়েছে।

সিটিনিউজ সেভেন ডটকম /এম.এস

Please follow and like us:
20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: