ধুলিহর সেই হাইব্রিড পাতি নেতাকে দল থেক অব্যাহতি
জুন ২৭, ২০১৮
২০ যাত্রী নিয়ে পদ্মায় স্পিডবোট ডুবি, লঞ্চ চলাচল বন্ধ
জুন ২৭, ২০১৮

কলারোয়ায় কীটনাশক ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি দেওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

আওলাদ হুসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: কলারোয়ায় সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ীর দোকান ঘর ভাঙ্গার হুমকি দেওয়ায় এক ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে।

শুক্রবার সকালে ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, কলারোয়া উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের গয়ড়া বাজারের মেসার্স বিথী ট্রেডার্সে ১৯৯৫ সাল থেকে বীজ, সার, কীটনাশক, রড ঢেউটিন, সিমেন্ট ও ভুষিমাল বিক্রয় করে আসছেন। এর আগে ওই জায়গার মালিক ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা: আহম্মদ আলী খান। তিনি ১৯৯৫ সালে বিক্রয় করে দিয়েছেন মেসার্স বিথী ট্রেডার্সের মালিক আলহাজ্ব আলতাফ হোসেনের কাছে। সেই থেকে ওই জায়গায় তারা সুনামের সহিত ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। কিন্তু হঠাৎ করে চন্দনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যন মনিরুল ইসলাম মনি কোন কারণ ছাড়াই মেসার্স বিথী ট্রেডার্সের মালিক আলহাজ্ব আলতাফ হোসেনকে হুমকি দিয়ে জানায় তাদের আর ওই জায়গায় ব্যবসা করতে দেওয়া হবে না। যে কোন সময় তাদের দোকান ঘর ভেঙ্গে দেওয়া হবে। বিষয়টি ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন বিভিন্ন স্থানে ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ কে জানিয়ে অবশেষে ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি কে বিবাদী করে কলারোয়া সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার দেং মামলা নং-৬৫/১৭। এই মামলায় বিবাদী দেখানো হয়েছে-গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা, তদপক্ষে সহকারী কৌশুলী জজ কোর্ট সাতক্ষীরা, সহকারী কমিশনার ভুমি কলারোয়া, ইউনিয়ন সহকারী ভুমি কর্মকর্তা চন্দনপুর ও ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি। এদিকে মামলার বাদী ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন সাংবাদিকদের জানান-ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ক্ষতি করার জন্য ষড়যন্ত্র চালিয়ে আসছে। এমনকি চেয়ারম্যান সাহেব কলারোয়া উপজেলা কৃষি অফিসে দরখাস্ত করে তাকে হয়রাণি করার চেষ্টা চালিয়েছে। এছাড়া বিজিবি দিয়ে তার দোকানের সার আটক করে। পরে বিজিবি সদস্যরা দোকানের সার ক্রয় করা মেমো দেখে ছেড়ে দিয়ে চলে যায়। এসময় বিজিবি সদস্যরা সকলের সামনে বলেন হয়রাণি করার তোর একটা ক্ষেত্র থাকে, আর কেমন হয়রাণি।

এদিকে চন্দনপুর ইউনিয়ন ভুমি অফিসের নায়েব গগন চন্দ্র জানান, সার ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলতাফ হোসেনের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ তার দপ্তরে নেই। তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না।

এদিকে ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলতাফ হোসেনকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেওয়ায় শুক্রবার বিকালে কলারোয়া থানায় একটি জিডি হয়েছে। যার জিডি নং-৩৪৭/১৮। বিষয়টি নিরহ সার ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন চেয়ারম্যান মনির হাত থেকে রক্ষা পেতে জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সিটিনিউজ সেভেন ডটকম /এম.এস

Please follow and like us:
20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: